হাঁড়িভাঙা আম চাষে স্বাবলম্বী মানিকগঞ্জের যুবকরা

হাঁড়িভাঙা আম চাষে স্বাবলম্বী মানিকগঞ্জের যুবকরা। রংপুরের বিখ্যাত হাঁড়িভাঙা আমের বাগান করে স্বাবলম্বী হয়েছেন মানিকগঞ্জের বেশ কয়েকজন যুবক। সুস্বাদু হওয়ায় এ অঞ্চলে হাঁড়িভাঙা আমের চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

জানা যায়, রংপুর থেকে চারা সংগ্রহ করে ৪০ শতাংশ জমিতে ৪৮টি গাছ দিয়ে বাগান শুরু করেন রোমান। এরপর তাকে আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি। নিজের বেকারত্ব ঘুচিয়ে তিনি হয়েছেন স্বাবলম্বী।

আম চাষি রোমান মিয়া বলেন, এই আমের বাগান করার পরে ইনশাআল্লাহ আমার দিন ঘুরে গেছে। একটা দিয়ে শুরু করলেও এখন আমার বাগানের সংখ্যা দুটি। এ মৌসুমে লাখ টাকার আম বিক্রি করতে পারবো।

রোমানের সফলতা থেকে আরও কয়েকজন যুবক আগ্রহী হয়েছেন আম বাগানে। তারাও গড়ে তুলেছেন বড় বড় বাগান। হাড়ি ভাঙ্গা ছাড়াও দেশ-বিদেশের বিখ্যাত নানা প্রজাতির আম গাছও রোপণ করা হয়েছে বাগানগুলোতে।

আম বাগান দেখতে আসা স্থানীয় বাসিন্দা লিটন আহমেদ বলেন, ‘হাঁড়িভাঙা আমের বাগান দেখে মনটা ভরে গেল। এই আমগুলো আমরা রাজশাহী, রংপুর থেকে এনে খেতে হতো আমাদের। এখন আর আমাদের সেখান থেকে আম আনতে হবে না। এলাকার চাহিদা মেটানের জন্য যথেষ্ট আম বাগানগুলোতে আছে।’

হাটিপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম মনির জানান, আমাদেরএলাকায় একাধিক যুবক হাঁড়িভাঙা আমের বাগান গড়ে তুলেছে। এই আম খেতে বেশ সুস্বাদু। আম চাষের মাধ্যমে তারা স্বাবলম্বী হয়েছেন।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...