হবিগঞ্জে গ্রাফটিং পদ্ধতিতে টমেটো চাষ, লাভবান কৃষকরা

হবিগঞ্জে গ্রাফটিং পদ্ধতিতে টমেটো চাষ করে লাভবান হচ্ছে কৃষকরা। চলতি মৌসুমে জেলার চুনারুঘাট উপজেলায় গ্রাফটিং পদ্ধতিতে টমেটোর চাষাবাদ করে ব্যাপক ফলন পেয়েছেন চাষিরা। ফলন ভালো হওয়ায় আগামীতে আরও বেশি জমিতে টমেটো চাষ করবেন বলে জানান তারা।

বন বেগুন গাছের সঙ্গে বারি টমেটো-৮ জাতের চারার গ্রাফটিং পদ্ধতি অবলম্বন করে চাষিরা বাড়িতে বসেই আয়ের পথ বেছে নিয়েছেন। ফলে সারা বছর চারা পেয়ে মালচিং শীট পদ্ধতিতে গ্রীষ্মকালীন সময়েও কৃষকরা টমেটো চাষ করে লাভবান হয়ে উঠছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, এ  উপজেলার গাজীপুর, আহম্মদাবাদ, দেওরগাছ, শানখলা, সাটিয়াজুড়ী,  মিরাশী ও পৌর এলাকার বিভিন্ন গ্রামে গ্রীষ্মকালীন সময়ে ১০-১৫ হেক্টর জমিতে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ করা হয়েছে। এসব এলাকা ছাড়াও পুরো উপজেলা মিলিয়ে গ্রীষ্মকালীন সবজি হিসেবে এ পর্যন্ত ৫০ হেক্টরেরও বেশি জমিতে টমেটোর চাষা করা হয়েছে।

কৃষক আবু তাহের বলেন, আমি গত বছর ৩ বিঘা জমিতে টমেটো চাষ করে খরচ বাদে ১০ লক্ষ টাকা লাভ করেছি। এবারও তিনি টমেটো বিক্রি করে লাভবান হব বলে আশা করছি। আমার দেখাদেখি আব্দুল খালেক, শাহ আলম, হান্নান ও কামাল মিয়াসহ অর্ধশতাধিক কৃষক এ পদ্ধতিতে টমেটো চাষ করেছেন।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...