বীজ আলুর দাম ৩০ টাকা করার দাবি দিনাজপুরে

দিনাজপুরে বীজ আলুর দাম প্রতি কেজি ৩০ টাকা নির্ধারণ এবং টমেটো সংরক্ষণের জন্য সরকারিভাবে হিমাগার স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে জেলা প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন করেছেন বাংলাদেশ কৃষক সমিতি দিনাজপুর শাখার নেতারা। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে কৃষিমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেন তাঁরা। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি দিনাজপুর শাখার সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান বাদল।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, চলতি মৌসুমে সরকার বিএডিসির মাধ্যমে প্রতি কেজি বীজ আলুর দাম নির্ধারণ করেছে ৪৪ থেকে ৪৮ টাকা। অনেক সময় বীজের সংকট দেখিয়ে বীজ ডিলাররাও প্রতি কেজি ৭ থেকে ১০ টাকা বেশি দরে বিক্রি করছেন। বীজ আলুর দাম এত চড়া হলে আগামী দিনগুলোয় আলুর বর্তমান বাজারমূল্যের চেয়ে বেশি দামে কিনতে হবে।

বক্তারা আরও বলেন, বর্তমান সময়ে আলু উৎপাদনে দিনাজপুরের কৃষক অনেক বেশি ভূমিকা পালন করছেন। সেই কৃষক তাঁর উৎপাদিত আলুর দাম পান ১০ থেকে ১৫ টাকা কেজি। কিছুদিন যেত না যেতেই ওই কৃষককেই বাজারে গিয়ে আলু কিনতে হয় ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বরাত দিয়ে এক বক্তা বলেন, গত মৌসুমে এ জেলায় টমেটোর আবাদ হয়েছে ২ হাজার ৬৯৮ হেক্টর জমিতে। যেখানে নাবি ও রবি জাতের টমেটোর উৎপাদন ছিল প্রায় এক লাখ মেট্রিক টন। কিন্তু টমেটো সংরক্ষণের কোনো হিমাগার না থাকায়, সময়মতো বাজারজাত করতে না পারায় অনেক কৃষক লোকসান গুনেছেন। এ সময় বীজ আলু প্রতি কেজি সর্বোচ্চ ৩০ টাকায় বিক্রির দাবি এবং অবিলম্বে দিনাজপুরে টমেটো সংরক্ষণের জন্য হিমাগার নির্মাণের দাবি জানান তাঁরা।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি আলতাফ হোসাইন, কৃষক সমিতি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দয়ারাম রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক সবিতা রানী ও জেলা শ্রমিকনেতা এস এম চন্দন।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...