বরবটির বাম্পার ফলন, খুশি মিরসরাইয়ে চাষিরা

বরবটির বাম্পার ফলন হয়েছে মিরসরাইয়ে। মিরসরাইয়ে অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর বরবটির বেশি ফলন হয়েছে। ভালো ফলনের পাশপাশি বাজারে ন্যায্য মূল্য পাওয়ায় খুশি চাষিরা।

মিরসরাই দেশের অন্যতম সবজির ভান্ডার হিসেবে পরিচিত। এই উপজেলার করেরহাট, হিঙ্গুলী, জোরারগঞ্জ, দুর্গাপুর, মিরসরাই সদর ইউনিয়ন, খৈয়াছরা ও ওয়াহেদপুর ইউনিয়নে বরবটি চাষ করা হয়েছে। ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় সবচেয়ে বেশি চাষ করা হয়েছে।

মিরসরাইয়ের বিভিন্ন ইউনিয়নে এবছর ২২০ একর জমিতে বরবটির চাষ করা হয়েছে। বরবটির দুই জাত দেশি ও হাইব্রিডের মধ্যে দেশি বরবটি চাষ করা হয়েছে বেশি। গত বছর কৃষকরা পাইকারি প্রতিকেজি বরবটি ২০-২৫ টাকায় বিক্রি করলেও এবছর ৪৫-৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে পারছেন। আর সাধারণ ক্রোতারা ৭০-৭৫ টাকা কেজি দরে বরবটি কিনছেন।

তালবাড়িয়ার কৃষক মোহাম্মদ খানসাব বলেন, এবছর আমি ২৫ শতক জমিতে বরবটির চাষ করেছি। বরবটি চাষে আমার ২৭ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। বরবটি চাষে অনেক শ্রম দিতে হয়। বাজার দর ভালো পাওয়ায় আমি খুশি। এখন পর্যন্ত প্রায় ৫৫ হাজার টাকার বরবটি বিক্রি করছি। আরো ২০-২৫ দিন বিক্রি করতে পারবো।

কৃষকরা তাদের উৎপাদিত বরবটি বিক্রির জন্য আঁটি বেঁধে উপজেলার মিঠাছরা, বড়তাকিয়া, বড়দারোগাহাট, সীতাকুণ্ড, বাড়বকুণ্ড ও শুকলালহাট বাজারে নিয়ে আসে। বিভিন্ন স্থানের পাইকাররা এসে বরবটি কিনে ট্রাকযোগে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেটসহ বিভিন্ন জেলায় নিয়ে যান।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কাজী মো. নুরুল আলম বলেন, আগের তুলনায় এখন বরবটির চাষ বেড়েছে। বাজারদর ভালো থাকলে বরবটির চাষ আরো বৃদ্ধি পাবে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...