বরগুনায় বরই চাষে আজিজের অভাবনীয় সাফল্য

বরগুনায় বরই চাষে আজিজের অভাবনীয় সাফল্য এসেছে। তিনি বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলার বাসিন্দা। বল সুন্দরী বরই চাষ করেই এই সাফল্য পেয়েছেন তিনি। তার এই বাগান দেখে এখন অনেকেই আগ্রহী হয়েছেন বরই চাষে। আগামীতে আরও বেশি বরই চাষ করবেন বলেও জানান তিনি।

জানা যায়, ছাত্র জীবন থেকেই তিনি আজিজ কৃষি উন্নয়ন ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব সাইখ সিরাজের ভক্ত। তার মাটি ও মানুষ অনুষ্ঠান দেখে ফলের বাগান করার প্রবল ইচ্ছা ছিল রাজ্জাকের। আব্দুল আজিজ হাওলাদার ছেলের পরামর্শে বাড়ির পাশে ৪০ শতাংশ জমিতে কুল চাষের পরিকল্পনা গ্রহণ করেন।

গত বছর মে মাসে রংপুর ও মাগুরা থেকে সাড়ে তিনশ’বল সুন্দরী বরইয়ের চারা নিয়ে আসেন। পরে তার জমিতে এই বরই চারা রোপণ করেন। তার অক্লান্ত পরিশ্রম ও পরিচর্যায় মাত্র ৭ মাসের মাথায় গত ডিসেম্বরে সব গাছেই বরই ধরে। এখন প্রতিটি গাছে ঝুলছে থোকায় থোকায় পাকা বরই।

কৃষক আজিজ হাওলাদার বলেন, আমি ৩৯ শতাংশ জমিতে বল সুন্দরী কুলের চাষ করেছি। প্রথম বছরেই এতো ফলন হবে তা ভাবিনি। এবার ৮০ হাজার টাকার কুল বিক্রি করেছি। আমার কুল বাগান দেখে অনেক কৃষক বল সুন্দরী কুল চাষে আগ্রহী হয়েছেন।

তালতলী উপজেলার কৃষি অফিসার আরিফুর রহমান বলেন, এ অঞ্চলে বল সুন্দরী জাতের কুল চাষ নেই বললেই চলে। আজিজই প্রথম বল সুন্দরী কুল চাষ করেছেন। তিনি চাইলে তাকে সহযোগিতা করা হবে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...