গম চাষ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে বগুড়ায়

বগুড়ায় লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে গম চাষ। চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ও জমি চাষের উপযোগী হওয়ায় গমের বাম্পার ফলন হয়েছে। বাজারে দাম ভালো পেলে এবার লাভবান হতে পারবেন বলে মনে করছেন কৃষকরা। আর লাভবান হলে আগামীতে আরও বেশি জমিতে চাষ করবেন বলে জানান চাষিরা।

জানা যায়, অন্যান্য ফসলের তুলনায় গম চাষে তুলনামূলকভাবে কম খরচে অধিক লাভ পাওয়া যায় বলে এ জেলার কৃষকরা গম চাষে ঝুঁকছেন। এছাড়াও এই ফসল চাষে কৃষকরা তেমন পরিশ্রমও করতে হয় না কৃষকদের।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, গম সাধারণত বেলে দোঁ-আশ মাটিতে ভাল হয়ে থাকে। বগুড়া জেলার সোনাতলা, সারিয়াকান্দি, ধুনট উপজেলায় গমের চাষ সবচেয়ে বেশি হয়ে থাকে। এপ্রিলের মধ্যভাগে কৃষকের ঘরে গম উঠতে শুরু করবে। তারপর মাড়াই করে ভেঙ্গে আটা ও ময়দা তৈরি হবে। বিভিন্ন কোম্পানি মাঠ পর্যায় থেকে গম সংগ্রহ করছেন।

চলতি অর্থ বছরে বগুড়ায় গম আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২ হাজার ১শ’ হেক্টর জমি। উৎপাদন আশা করা হয় ৫ হাজার ৪শ’ ৫৫ টন। কৃষক লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি জমিতে গমের আবাদ করে। যে পরিমাণ ২ হাজার ৯শ’ ৮৩ হেক্টর। গম উৎপাদন হওয়ার কথা অন্তত ৭ হাজার টন।

গম চাষি রফিকুল ইসলাম বলেন, আগের তুলনায় কৃষকরা গম চাষে আরও বেশি আগ্রহী হয়েছেন। লাভ বেশি হওয়ায় আমার জমিতে গমের চাষ করেছি। ফলনও বেশ ভালো হয়েছে। আশা করছি এবারও লাভবান হতে পারবো।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...