তিস্তার বিস্তীর্ণ বালুচরে সবুজের সমারোহ

তিস্তা নদীর দুই তীরে জেগে উঠা বালুচরে কৃষকরা নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখছেন। তিস্তা নদীর বির্স্তীন বালুচর এখন কৃষকের জন্য সোনালী স্বপ্নের দিশারী হয়ে দাড়িঁয়েছে।  জেগে ওঠা এসব চরে কৃষকরা চাষ করছেন বিভিন্ন মৌসুমি সবজি ও ফসল।

জানা যায়, নদীর বালুচরে এখন চাষ করা হচ্ছে চিনা বাদাম, ভুট্টা, সরিষা, লাউ, গম, ধান, ডাল, পেঁয়াজ, মরিচসহ বিভিন্ন ধরনের মৌসুমি সবজি। এখন চর এলাকার চারদিকে শুধুই সবুজের সমারোহ। এসব চরে চাষ হওয়া সবজি ও ফসলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছেন বাজারে। এছাড়া কৃষকরা চাষ করে বেশ লাভবান হচ্ছেন। চরে ফসল ও সবজি ফলিয়ে অনেকেই এখন জীবিকা নির্বাহ করছেন।

তিস্তা চরের কৃষক শহিদুল ইসলাম বলেন, প্রত্যেক বছর বন্যা আর শুষ্ক মৌসুমে বালু চরের কারণে এখন চর থেকে দূরে গিয়ে বসতি স্থাপন করেছি। নদী ভাঙ্গনের কারণে এখন অনেকেই প্রায় নিঃস্ব। এর মধ্যেই চরের জমিতে ফসল ও সবজির চাষ করে স্বাবলম্বী হয়েছেন অনেক কৃষক।

গঙ্গাচড়া উপজেলার কৃষি অফিসার শরিফুল ইসলাম বলেন, তিস্তার চরে এখন সব ধরনের ফসলের চাষ করা হচ্ছে। চরের কৃষকদের বিভিন্ন ফসল ও সবজির চাষ করার জন্য কৃষি বিভাগ থেকে সহযোগিতা করা হচ্ছে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...