কিশোরগঞ্জে ঘাস চাষে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা

কিশোরগঞ্জে ঘাস চাষে লাভবান হচ্ছেন স্থানীয় কৃষকরা। জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলায় বেশির ভাগ খামারিরা বিদেশি বিভিন্ন জাতের ঘাস চাষ করছেন। এতে নিজেদের খামারের খাদ্য চাহিদা মিটিয়ে কেউ কেউ ঘাস বিক্রিও করছেন।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় ঘাসের ক্ষেত রয়েছে প্রচুর। যে সকল খোলা মাঠে ধান চাষ দেখার কথা সেখানে শুধু ঘাসের বিচরণ। দূর থেকে দেখলে মনে হবে আখের ক্ষেত। চাষ হওয়া এসব ঘাস দিয়ে স্থানীয় খামারগুলো খাদ্য চাহিদা পূরণ হচ্ছে।

খামারি রাসেল বলেন, বন্যা ও অতিবৃষ্টির কারণে ধানের খড় ও তুলার দাম বেশি হওয়া গরুর খামার দিয়ে খুব একটা লাভবান হচ্ছিলাম না। পরে উপজেলার প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর থেকে পরামর্শ নিয়ে উন্নত জাতের সুপার নেপিয়ার, পাকচং ও হোয়াইট জার্মান ঘাসের চাষ শুরু করি।

উপজেলার প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এ উপজেলার ৯ ইউনিয়ন ১ টি পৌরসভায় ছোট-বড় মিলিয়ে গরু, ছাগল, ভেড়ার খামার রয়েছে প্রায় ৮৬ টি। এসব খামারে ও গৃহপালিত গরু, ছাগল, ভেড়া আছে প্রায় ১ লক্ষ হাজারের অধিক। এসব গবাদিপশুর খামারগুলোতে খাদ্য চাহিদা পূরণের জন্যই ঘাস চাষ করছেন কৃষকরা।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...