১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,বর্ষাকাল
E-krishi-logo

প্রচ্ছদ > ধান চাষে নতুন সমস্যা জলবায়ু পরিবর্তনে

ধান চাষে নতুন সমস্যা জলবায়ু পরিবর্তনে ধান চাষে নতুন সমস্যা ধান চাষ

ধান চাষে নতুন সমস্যা জলবায়ু পরিবর্তনে

১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস -এর মধ্যে তাপমাত্রা ধানের ফলনের জন্য উত্তম। ধানের থোড় অবস্থায় ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস  এবং ধানের ফুল অবস্থায় ২০

আমের মুকুল ও কুড়ি ঝরা রোধে করণীয়

আমকে বাংলাদেশের ফলের রাজা বলা হয়ে থাকে । আম বাংলাদেশের অর্থকরী ফল এবং আম একটি গ্রীষ্মকালীন ফল। সাধারণত মার্চ মাসের দিকে আম গাছে মুকুল আসা

আলুর মড়ক রোগ ও প্রতিকারে করণীয়

আলু চাষ পরবর্তী সময়ে আলুর পরিচর্যায় থাকতে হয় সমক্য ধারণা । বিশেষ করে আলুর মড়ক রোগে চাষিকে জানতে হয় এই রোগ প্রতিরোধের করণীয় কি কি!

বাঁধাকপিতে পোকার আক্রমণ ও রোগ দমনে করণীয়

বাঁধাকপিতে পোকার আক্রমণ ও রোগ দমনে করণীয় বেশ কিছু কাজ রয়েছে। সেগুলো জানলে কৃষকরা সঠিক সময়ে রোগ ও পোকার আক্রমণ বন্ধ করে অধিক ফলন পেতে

যেভাবে নারকেল গাছের সাদা মাছি নিয়ন্ত্রন করবেন

নারকেল গাছে ব্যাপক আকারে সাদা মাছির আক্রমণ দেখা দিয়েছে। এতে রাতারাতি পাতা সাদা হয়ে যাচ্ছে। ছোট হচ্ছে নারকেলের আকার। ভেতরের পানি শুকিয়ে যাচ্ছে। নারকেল গাছের

উচ্চফলনশীল নতুন জাত বিনা মরিচ-১

উচ্চফলনশীল একটি নতুন জাতের মরিচ হল বিনা মরিচ ১। সম্প্রতি এই মরিচের নতুন জাতটি উদ্ভাবন করেছেন বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) এর উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের

যেসব জাত নির্বাচন করবেন বরই চাষে সফলতা পেতে

কুল বা বরই দক্ষিণ এশিয়ায় বহুল প্রচলিত কন্টকাপূর্ণ গাছের ফল। বাংলাদেশের প্রায় সর্বত্র, সর্বপ্রকার মাটিতেই বরই গাছ জন্মে। বরই চাষে সফলতা পেতে হলে উন্নত জাত

নতুন তিন জাতের ব্রির ধান

বোরো মৌসুমের লবণাক্ততা সহনশীল দুটি ও আউশ মৌসুমে চাষাবাদের উপযোগী একটিসহ মোট তিনটি নতুন উচ্চ ফলনশীল ধানের জাত উদ্ভাবন করেছে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি)।

বিজ্ঞানীদের হাত ধরে দেশি মাছ ফিরছে পাতে

মাছে–ভাতে বাঙালি—বেশ পুরোনো প্রবাদ। দেশে ধানের উৎপাদন বাড়ায় কয়েক বছর ধরে ভাতের অভাব নেই। কিন্তু দেশি মাছ কম পাওয়া যাচ্ছিল। নদীতে দূষণ ও পলি পড়ায়

লইট্টায় ক্ষতিকর প্লাস্টিক কণা

দেশে শুঁটকির মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও বহুল বিক্রীত হচ্ছে লইট্টা। কক্সবাজার জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম খালেকুজ্জামানের দেওয়া তথ্যমতে, কক্সবাজার উপকূলে বছরে প্রায় ৩০০ কোটি

body { font-family: ‘SolaimanLipi’, Arial, sans-serif !important; }