২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭


হোম   »   কৃষি তথ্য   »   সংবাদপত্রে কৃষির খবর  
আলু চাষে সাফল্য পেতে চান চৌগাছার কৃষকরা

পরপর দু’বছরের লোকসান কাটিয়ে উঠতে যশোরের চৌগাছার কৃষকরা তীব্র শীত উপেক্ষা করে কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছে আলু ক্ষেত পরিচর্যায়। অধিক ফলন আর লাভের আশায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে তারা।

চৌগাছা উপজেলা কৃষি অফিসার এএইচএম জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত দু’বছর আলুর ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় এবার আলু চাষে চৌগাছার কৃষকরা আগ্রহ হারিয়েছেন। চলতি মৌসুমে উপজেলায় ২০৮ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও চাষ হয়েছে ৩১০ হেক্টর জমিতে।তবে কৃষি বিভাগ চলতি মৌসুমে আলুর বাম্পার ফলনের আশা করলেও কৃষকরা শঙ্কিত তাদের উত্পাদিত আলুর ন্যায্যমূল্য নিয়ে।

চৌগাছার বাটিকামারি গ্রামের কৃষক শামসুল ইসলাম জানান, ৮-৯ বছর আগে অভাব-অনটনের কারণে যখন সংসারের চাকা আর ঘুরছিল না, তখন চৌগাছা মুসলিম জুয়েলার্সের মালিক হায়দার আলীর সহযোগিতায় জমি বর্গা নিয়ে প্রথম ৫ বিঘা আলুর চাষ করি। প্রথম বছরেই বাম্পার ফলন পায়। পরের বছর ১০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেও বাম্পার ফলন পায়। এভাবে ১৫-২০ বিঘা জমি বর্গা নিয়ে আলু চাষ করতে থাকি। আলু চাষ করে সংসারের ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়ে মেয়ের বিয়েসহ দু’তলা বাড়িও করেছি। এ বছর জমি বর্গা নিয়ে ৩২ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি। তবে গত দু’বছর যেভাবে আলুতে লোকসান গুনতে হয়েছে তাতে এবার যদি দাম ভালো না পায় তাহলে হয়তো পথে বসতে হবে। চাঁদপাড়া গ্রামের আসাদুল ইসলাম জানান, গত বছর ১০ বিঘা জমিতে আলু চাষে মোট খরচের তিন ভাগের দুইভাগ লোকসান হয়েছিল। এ বছর পুষিয়ে নিতে এবং ভালো দামের আশায় ১৪ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি।

ফতেপুর গ্রামের মমিনুর রহমান জানান, গত বছর আলু চাষ করে প্রচুর লোকসান হলেও এ বছর লাভের আশায় কপাল ঠুকে ২০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি। মুক্তারপুর গ্রামের কৃষক এনামুল হক ১৫ বিঘা, একই গ্রামের কাজেম আলী ৫ বিঘা, মনির হোসেন ৭ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছেন। চৌগাছার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে এখন নতুন আলু উঠছে। প্রতি কেজি আলু ২৪-২৫ টাকা দরে খুচরা এবং ১৮-২০ টাকা দরে পাইকারি বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতাদের কাছে দাম একটু বেশি মনে হলেও দাম পেয়ে কৃষকরা অনেক খুশি। তবে আলু চাষীদের সঙ্গে আলাপকালে তারা জানিয়েছেন, ধানের মতো যদি সরকারিভাবে আলুর মূল্যও নির্ধারণ করা হয় তাহলে কৃষকরা ঠকবেন না এবং আলু চাষে আগ্রহী হবেন।

সূত্র: দৈনিক আমার দেশ
পাতাটি ৪৪২০ প্রদর্শিত হয়েছে।
এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

»  চাই কৃষিবান্ধব তথ্যপ্রযুক্তি

»  উত্তরাঞ্চলে ৫০ হাজার বিঘায় সয়াবিন চাষের পরিকল্পনা

»  আলু চাষে সাফল্য পেতে চান চৌগাছার কৃষকরা

»  তালায় লবণসহিঞ্চু টমেটো চাষে ব্যাপক সাফল্য

»  ফসলি জমিতে সারের ব্যবহার আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে